ফরিদপুরে হাসপাতাল থেকে করোনা রোগীর পলায়ন, পরে আটক

105

আকাশ জাতীয় ডেস্ক:

ফরিদপুরে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল থেকে পালানোর পর করোনায় আক্রান্ত সোবহান মিয়া নামের এক রোগীকে পুলিশ আটক করেছে।

সোমবার সকালে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ (ফমেক) হাসপাতাল থেকে সে কৌশলে পালিয়ে যায়। পরে নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জ্যোতি প্রু ও থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানার চেষ্টায় তাকে আটক করা হয়।

ফমেক হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুর রহমান জানান, সকাল ৯টার দিকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রোগী সোবহান মিয়া গেটের বাইরে চলে যায়। পরে তাকে খুঁজে না পেয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পরে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করে। হাসপাতালে ভর্তি থাকা সোবহান মিয়ার বাড়ি নগরকান্দা উপজেলায় হওয়াতে সেখানকার থানা পুলিশকেও অবহিত করা হয়।

নগরকান্দা থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, রোগী পালানোর সংবাদে তারা সম্ভাব্য সব জায়গায় বার্তা পাঠান। পরে খবর পাওয়া যায় ফরিদপুর-বরিশাল রোডের গজারিয়া নামক স্থানে ওই রোগীকে দেখা গেছে। পরে স্থানীয় ইউপি সদস্যের সহায়তায় বেলা সাড়ে ১০টার দিকে তাকে নগরকান্দার মহিলা রোড এলাকা থেকে আটক করে ফের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

জানা গেছে, করোনায় আক্রান্ত সোবহান মিয়া ঢাকার একটি টেলিভিশন চ্যানেলের এক পরিচালকের গাড়িচালক। সে ৪ মে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার ডাঙ্গী ইউনিয়নে আসে। ১২ মে তার করোনা ধরা পড়ে। এরপর সে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি ছিল।