কিশোরগঞ্জে করোনার উপসর্গ নিয়ে দুই মৃত্যু, ১০০ বাড়ি লকডাউন

202

আকাশ জাতীয় ডেস্ক:

কিশোরগঞ্জে আজ মঙ্গলবার করোনার উপসর্গ নিয়ে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন পাকুন্দিয়া উপজেলার নামা পুটিয়া গ্রামের সুমন মিয়া (২৫) ও বাজিতপুর উপজেলার তাতালচর গ্রামের আমরু মিয়া (৫২)। এ ঘটনায় প্রশাসন পাকুন্দিয়ার নামা পুটিয়া গ্রামের ১০০ বাড়ি লকডাউন করে দিয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পেশায় রিকশাচালক আমরু মিয়া জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে সোমবার বাজিতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। আজ মঙ্গলবার সকালে তার মৃত্যু হয়। এছাড়া পাকুন্দিয়া উপজেলার নামা পুটিয়া গ্রামের একটি বেসরকারি কোম্পানির কর্মচারী সুমন মিয়া একই উপসর্গ নিয়ে নিজ বাড়িতে আজ মঙ্গলবার দুপুরে মারা যান।

এ ঘটনায় প্রশাসন পাকুন্দিয়ার নামা পুটিয়া গ্রামের ১০০ বাড়ি লকডাউন করে দিয়েছে। পাকুন্দিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদ হাসান এ কথা জানিয়েছেন। দু’জনসহ মঙ্গলবার মোট ১৪ জনের শরীরের নমুনা আইপিএইচ-এ পাঠানো হয়েছে বলে সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান জানিয়েছেন। এ নিয়ে মোট ৩০ জনের নমুনা পাঠানো হয়েছে।

নমুনা পরীক্ষায় ১৪ জনের করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। অন্যগুলোর পরীক্ষা প্রক্রিয়াধীন বলে জানা গেছে। এদিকে আজ মঙ্গলবার নতুন করে ৫৬ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এরমধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক ১ জন ও হোম কোয়ারেন্টাইনে ৫৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ২২ জন।